মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১১:৪০ পূর্বাহ্ন

ময়মনসিংহে আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্বেও বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ

শিবলী সাদিক খানঃ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৩ মে, ২০২৩
  • ১০৬ জন দেখেছেন

শিবলী সাদিক খানঃ

ময়মনসিংহ নগরীর বড় বাজারে পুরাতন কারুকার্য পূর্ণ সুন্দর একটি বাড়ি। ময়মনসিংহ শহরস্থ ৩/১ ও ৩নং হোল্ডিং বড় বাজার আনন্দ মোহন এ্যাভিনিউ রোড ৪১.২৮ শতাংশ ভূমির মধ্যে বহু পুরাতন স্থাপিত ঘর-বাড়ী ভাঙ্গিয়া নতুন বহুতল ভবন নির্মাণ কাজ করার অভিযোগ উঠেছে।
যে বাড়িটি ছিল রাজ প্রাসাদের মতো। সেই বাড়িটিতে ছিলনা কোন মন্দির তবুও মন্দিরের নাম ধারণ করে বহুতল ভবন নির্মাণ কাজ করে যাচ্ছে একটি প্রভাবশালী মহল। আদালতের নিষেধাজ্ঞা না মেনে তারা পুরাতন কারুকার্য পূর্ণ সুন্দর বাড়িটি ভেঙ্গে ইট, সুরকিসহ মালামাল লুটপাট করে নিয়ে রাতারাতি কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন বুনেছে একটি চক্র।
এমন অভিযোগ পাওয়ার পর সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ ও কিছু স্থানীয় লোকজনের সাক্ষাৎকারে জানা গেছে, এরা ভূমিদস্যু, পুরাতন বাড়িটির ভিতরে যে সকল লোকজনের বসবাস মনে হয় এরা ময়মনসিংহের স্থানীয় কোন লোকজন নয়। এরা বহিরাগত লোক কেউ বলছে এরা আমাদের দেশরই না। কিন্তু ভিতরে ঢুকে সাক্ষাৎকার নিলে তারা বলে আমরা সিলেট থেকে এসেছি।
এ দিকে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্বেও সিসি ক্যামেরা বসিয়ে রাতের অন্ধকারে বহুতল ভবন এর কাজ চালিয়ে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।
অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যয়ন ট্রাইবুনাল আদালতে দায়েরকৃত ৭২৬৬/১৩ অর্পিত মোকাদ্দমার একজন আমমোক্তার নামা বাদী ময়মনসিংহ নগরীর ৯২/এফ, বাঘমারা এলাকার মৃত কাসেম আলীর পুত্র হাসমত আলী।
এ বিষয়ে বাদী হাসমত আলী বলেন, দীর্ঘ ১১ বছর যাবৎ উক্ত মোকাদ্দমা পরিচালনা করিয়া আসছি। আমার দায়ের করা মোকাদ্দমা চলমান অবস্থায় মোকাদ্দমার তফসিল বর্ণিত ভূমিতে অবৈধ লীজ ধারীগণ লীজ কর্তৃপক্ষের অনুমতিহীন অর্পিত নালিশী ভূমিতে ময়মনসিংহ শহরস্থ ৩/১ ও ৩নং হোল্ডিং বড় বাজার আনন্দ মোহন এ্যাভিনিউ রোড ৪১২৮ শতাংশ ভূমির মধ্যে আমাদের বহু পুরাতন স্থাপিত ঘর-বাড়ী ভাঙ্গিয়া নতুন বহুতল ভবন নির্মাণ কাজ করিতেছে।
উক্ত বিষয় নিয়ে আমি ২৮/০২/২০২৩ তারিখ ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ দাখিল করি। সাথে সাথে ০২/০৩/২০২৩ তারিখ ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় একটি (জিডি) সাধারণ ডায়েরি করি। যার জিডি নং ২৮৩।
বাদী হাসমত আলী আরো বলেন, আমি আদালতে নিষেধাজ্ঞার দরখাস্ত দাখিল করিলে বাদী/বিবাদীর উকিলের মাধ্যমে যুক্তিতর্ক শুনাইলে আদালত উক্ত মোকদ্দমায় সকল দিক বিবেচনা করে ০৯/০৩/২০২৩ তারিখ মোকদ্দমায় চলমান অবস্থায় সকল প্রকার নির্মাণ কাজ বন্ধ করার জন্য অর্ন্তবর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞার আদেশ প্রদান করা হয়। সদর এসিল্যান্ড এর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের একটি টিম নির্মাণকারীদের সতর্ক করেছেন বলে সূত্র জানিয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির অরো খবর
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com