রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ১২:১৩ অপরাহ্ন

সিংড়ায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ ও এলাকাবাসীর বিক্ষোভ সমাবেশ

বেল্লাল হোসেন বাবু, নাটোর:
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১২৮ জন দেখেছেন

বেল্লাল হোসেন বাবু, নাটোর:

 

নাটোরের সিংড়ার আয়েশ বছিরুল আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ শামসুল ইসলামের বিরুদ্ধে অনিয়ম দুর্নীতি ও একক কর্তৃত্ব বাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে প্রতিষ্ঠানের অবিভাবক সহ স্থানীয় জনসাধারণ।

রবিবার(১ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় সিংড়া- বারুহাস রাস্তা সংলগ্ন আয়েশ বাজারে এই বিক্ষোভ সমাবেশ করেন তারা।

সমাবেশে বক্তব্য দেন, প্রতিষ্ঠানের অবিভাবক সদস্য মোঃ আছালত মোল্লা, আব্দুল রউফ ফকির, আয়ুব আলী,
আয়েশ গ্রামের প্রবীণ আওয়ামীলীগ কর্মী আলা উদ্দিন আকন্দ, শেখ বাহা উদ্দিন, দেলমামুদ মোল্লা, রেজাউল করিম, আয়েশ জামে মসজিদের সাধারন সম্পাদক আকরাম হোসেন, শাহা আলম ফকির, ডাহিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক জুলহাজ কায়েম, ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি সাইফ মাহমুদ,৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শাহ আলম, ডাহিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রাশিদুল ইসলাম শ্রাবণ, শফিকুল ইসলাম, সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আকবর হোসেন প্রমূখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ শামসুল ইসলাম দীর্ঘ দিন ধরে নিয়োগ বাণিজ্য, অর্থ আত্মসাৎ সহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দুনীর্তি করে আসছে। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠান সুষ্ঠ ভাবে পরিচালনার জন্য অবিভাবক এবং স্থানীয় জনসাধারনের সম্মতিক্রমে একটি গভর্নর বডি গঠন করা হয়। প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের ডিও নিয়ে এবং ওই নির্বাচিত কমিটির সম্ময়ে সভাপতি নির্বাচিত হন ডাহিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এম এম আবুল কালাম। কিন্তু বড়ই পরিতাপের বিষয় বর্তমান শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক অনুমোদিত ওই কমিটি বাতিল করে নিজের ইচ্ছে মত নতুন কমিটি গঠন করার অপচেষ্টা চালাচ্ছেন অধ্যক্ষ শামসুল ইসলাম। আমরা এসব দুনীর্তি আর একক অপশক্তির বিরুদ্ধে আজ এখানে সমাবেত হয়েছি। দাবি আদায় না হলে আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

এসময় বিক্ষোভ কারীরা ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দুর্নীতি বন্ধ কর করতে হবে’ নিয়োগ বাণিজ্যে বন্ধ করতে হবে” শ্লোগান দেন। পরে বিক্ষোভ কারীরা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক কর্মচারীদের পথরোধ করে প্রতিবাদ জানান এবং অবিলম্বে অধ্যক্ষকে প্রতিষ্ঠানে হাজির করার দাবি করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত অধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ শামসুল ইসলাম মোবাইল ফোনে বলেন, অফিসের কাজে আজ মাদ্রাসায় যেতে পারি নাই। সাবেক চেয়ারম্যান এম এম আবুল কালামকে সভাপতি করে প্রতিমন্ত্রীর ডিও নিয়ে যে কমিটি অনুমোদন হয়েছে তা বৈধ নয়। এ জন্য বৈধ পন্থায় প্রতিমন্ত্রীর ডিও নিয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল মজিদ মামুনকে সভাপতি করে নতুন কমিটির তালিকা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান, প্রতিষ্ঠানের সভাপতি বা কমিটি করার কোন ক্ষমতা আমাদের নাই। স্থানীয় সাংসদের নির্বাচিত ব্যক্তিকে শিক্ষাবোর্ড সভাপতি নিযুক্ত করেন। এটা আমাদের দায়িত্ব নয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির অরো খবর
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com