সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৬:৩১ অপরাহ্ন

নওগাঁয় ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় ইউপি সদস্য গ্রেফতার

সাংবাদিকের নাম:
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ১৬৯ জন দেখেছেন

 

মোহাম্মদ আককাস আলীঃ

 

নওগাঁর পত্নীতলায় এক নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আনারুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।
গ্রেফতারকৃত হলেন উপজেলার নির্মইল ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ও শ্যামপুর গ্রামের মৃত আমেজ উদ্দিনের পুত্র আনারুল ইসলাম (৪৫)।

মামলার এজাহার ও থানা পুলিশ এবং স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ওই নারীর বাবার বাড়ি উপজেলার নির্মইল ইউনিয়নের গোবিন্দবাটি গ্রামে। ভুক্তভোগী তালাকপ্রাপ্ত হওয়ার পর নিজ মা-বাবার বাড়িতে বসবাস করছে। গত বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ওই তালাকপ্রাপ্ত নারীর বাড়িতে অসৎ উদ্দেশ্যে প্রবেশ করে ইউপি সদস্য আনারুল।

পরে গল্পের ছলে ওই নারীর দাদী ও ছোট ভাইকে গ্রামের একটি দোকানে কৌশলে পান ও সিগারেট কিনতে পাঠায় আনারুল। এই সুযোগে ফাঁকা বাড়িতে তালাকপ্রাপ্ত নারীকে জোর করে খাটের উপর শুয়ে দিয়ে জামা-কাপড় খুলে ধর্ষণ করার চেষ্টা চালায় ইউপি সদস্য আনারুল। ভুক্তভোগী ওই নারীর আত্মচিৎকারে প্রতিবাদী প্রতিবেশিরা ছুটে এসে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে এ সময় ইউপি সদস্য আনারুলকে ধরে ফেলে ও উত্তম-মধ্যম দেয়।

পরে লম্পট আনারুলকে আটকিয়ে রাখে গ্রামবাসী। এরপর পত্নীতলা থানা পুলিশ জনতা কর্তৃক খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রতিবাদী জনতার হাতে আটককৃত ইউপি সদস্য আনারুলকে আহত অবস্থায় গ্রেফতার করে। পরে এ ঘটনায় রাতেই ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ চেষ্টার মামলা রেকর্ড করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পত্নীতলা থানার ওসি মোজাফফর হোসেন উপরোক্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে জনতা কর্তৃক মারধরের শিকার আহত আসামী ইউপি সদস্য আনারুলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পুলিশ হেফাজতে ভর্তি করা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির অরো খবর
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com