সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৬:৫১ অপরাহ্ন

ইপিজেড থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে আইন শৃঙ্খলা ও কিশোর গ্যাং প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

সাংবাদিকের নাম:
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২২ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৭৯ জন দেখেছেন

 

মোঃ শহিদুল ইসলাম
বিশেষ সংবাদদাতাঃ

চট্টগ্রাম নগরীর সিএমপির ইপিজেড থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে আইন শৃঙ্খলা ও কিশোর গ্যাং প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অদ্য ২১ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রি. রবিবার দুপুর ১৫:০০ ঘটিকায় নগরীর ইপিজেড থানা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হল কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইপিজেড থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব মোহাম্মদ হোসাইন।

সভায় থানা এলাকায় সংঘটিত বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের বিষয়ে উপস্থিত জনসাধারণের উদ্দেশ্যে সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন ইপিজেড থানার সুযোগ্য অফিসার ইনচার্জ জনাব মোহাম্মদ হোসাইন। এসময় তিনি থানা এলাকায় বসবাসরত সম্মানিত নাগরিকবৃন্দকে কিশোর গ্যাং, জুয়া, মাদকের ব্যবহার, পতিতাবৃত্তি ইত্যাদি প্রতিরোধে সচেতন হবার পরামর্শ দেন। নিজের পরিবারের উঠতি বয়সের সন্তানের দিকে সর্বোচ্চ নজরে রাখার পরামর্শ দেন। পাশাপাশি থানা এলাকায় কোথাও এধরনের কর্মকাণ্ড পরিলক্ষিত হলে ততক্ষণাত তা থানায় অবহিত করতে বলেন।
তিনি আরও বলেন বর্তমান সময়ে কিশোর গ্যাং সমাজের জন্য মারাত্মক এক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে । কিশোর গ্যাংয়ের কারণে সমাজ তথা দেশের শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নষ্ট হচ্ছে। যতই দিন যাচ্ছে, এই গ্যাংয়ের দৌরাত্ম্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। উঠতি বয়সের ১৫ থেকে ১৭ বছরের কিশোররা পরিণত হচ্ছে কিশোর গ্যাংয়ে।

পরিসংখ্যান বলছে এসব কিশোর গ্যাংয়ের অপরাধমূলক কাজগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে সাধারণ মানুষকে নানা ভাবে উত্ত্যক্ত করা, ইভটিজিং বিশেষ করে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া মেয়েদের উদ্দেশ্যে বাজে মন্তব্য করা, একে অন্যের সাথে বাকবিতন্ডায় লিপ্ত হওয়া, ভয়-ভীতি, হুমকি দেওয়া, মারামারি, দাঙ্গা-হাঙ্গামায় জড়িত হওয়া ইত্যাদি। তবে সাম্প্রতিক সময়ে এক বা একাধিক পক্ষের হয়ে বিবাদে জড়িয়ে হতাহতের ঘটনাও ঘটাচ্ছে এসব উঠতি বয়সীরা৷ এক শ্রেণীর সন্ত্রাসীরা এসব কিশোরদের ব্যবহার করে সংঘটিত করছে নানা অপরাধ মূলক কর্মকান্ড৷ এক সময় এসব অপরাধের পাশাপাশি মাদকের ভয়াল নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ছে কিশোররা। তখন মাদকের অর্থের জোগান দিয়ে নিয়মিত ছিনতাই, চুরি, চাঁদাবাজি থেকে ডাকাতির মতন বড় বড় অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে এসব কিশোররা। প্রতিনিয়ত আইনশৃংখলা বাহিনীর হাতে আটকের পাশাপাশি কারাগার গুলোতে বাড়ছে কিশোর অপরাধীর সংখ্যা৷ বিশেষজ্ঞদের মতে শুধুমাত্র আইন প্রয়োগ করে কিশোর গ্যাংকে নির্মূল কোন ভাবেই সম্ভব নয়। সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।

এবার কিশোর গ্যাং প্রতিরোধ, অপরাধ দমন এবং সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে স্থানীয় কিশোর ও তাদের অভিভাবকদের নিয়ে ব্যতিক্রমি সভার আয়োজন করেছে চট্টগ্রাম নগরীর সিএমপির ইপিজেড থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি মোহাম্মাদ হোসাইন।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন ইপিজেড থানার অপারেশন অফিসার জানব আফসার উদ্দিন রুবেল। এসময় সেখানে অত্র থানার সকল অফিসার ও ফোর্সসহ এলাকার বিশেষ জন উপস্থিত ছিলেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির অরো খবর
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com